সম্প্রতি দেখলাম, এক কোটিপটি পিতার লাশ বেওয়ারিশ হিসাবে আঞ্জুমানে দেওয়া হয়েছে দাফনের জন্য। এ খবরটা পড়ে সবাই উনার সন্তানদের দিকে দোষ চাপিয়ে ছি:ছি: করছে। আমার কথা এখানে দোষ কার? বাবার নাকি সন্তানের? বাবা কি এমন কাজ করলেন এতে ক্ষিপ্ত সন্তানরা বাবার লাশ পর্যন্ত নিজের দু’ হাতে ধরে কবরে নামালো না? সন্তানরা আদৌ কি মমতার শিক্ষা পেয়েছিল? নাকি টাকাই সব শেখানো হয়েছিল?

আমি কোনদিনও বেঁচে থাকতে আমার পরিচিতদের বেওয়ারিশ হতে দেই নি, প্রিয়মুখদের মাটিতে নামাতে ছুটে গিয়েছি। এই মানবিক শিক্ষা আমার পরিবার দিয়েছে।

আমি যতই অার্থিকভাবে স্বচ্ছল হই বা না হই প্রিয় মানুষটাকে শেষ সম্মান দিতে কোন কার্পন্য করবো না এবং আমার সন্তানদের একই শিক্ষা দিয়ে যাবো যাতে করে আমার লাশ বেওয়ারিশ হয়ে আঞ্জুমানের হাতে চলে না যায়। তারপর, আমার পরবর্তী বংশধররা নিজের হাতে একদিন আমাকে আদর স্নেহ দিয়ে মাটিতে রেখে আসবে। তখন, এটাই হবে আমার পরম পাওয়া।

#অ_আ_এলোমেলো_চিন্তা

Share

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »